1. mizanurrahmanbadol2@gmail.com : Chaloman Shomoy : Chaloman Shomoy
  2. arasif1989@gmail.com : jony :
  3. mashiur2k@gmail.com : mashiur :
  4. trustit24@gmail.com : Admin panel : Admin panel
  5. chalomanshomoy@gmail.com : Polash News : Polash News
  6. info@chalomanshomoy.com : suvash :
অ্যাটলেটিকোয় ‘গড’ ছিলেন গ্রিজম্যান, বার্সায় মেসিই সব - চলমান সময়
November 27, 2020, 4:35 pm
শিরোনাম:

অ্যাটলেটিকোয় ‘গড’ ছিলেন গ্রিজম্যান, বার্সায় মেসিই সব

স্পোর্টস ডেস্ক
  • আপডেট সময় : শনিবার, নভেম্বর ২১, ২০২০
  • 10 Time View

ক্লাব ফুটবলের বড় বড় শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ (এটিএম) ছেড়ে স্পেনের আরেক ক্লাব বার্সেলোনায় নাম লিখিয়েছেন ফ্রান্সের তারকা ফুটবলার অ্যান্তনিও গ্রিজম্যান। কিন্তু বার্সায় আসার পর সে অর্থে এখনও নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি ২৯ বছর বয়সী এ ফরোয়ার্ড।

বার্সেলোনার হয়ে এখনও পর্যন্ত ৫৭ ম্যাচে তার গোলসংখ্যা মাত্র ১৭; যা একজন স্ট্রাইকারের জন্য বেশ কমই বলা চলে। ২০১৯-২০ মৌসুমের শুরুতে ক্লাবে নাম লেখানোর পর থেকে এখনও পর্যন্ত মাঠের বাইরের কারণে বেশিরভাগ সময়ে খবরের শিরোনাম হয়েছেন গ্রিজম্যান। তার কাছের মানুষরা বারবার অভিযোগ তুলেছেন বার্সার অধিনায়ক লিওনেল মেসি আধিপত্যের ব্যাপারে।

তবে এ বিষয়ে খানিক দ্বিমত প্রকাশ করেছেন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সাবেক ফরোয়ার্ড পাওলো ফুর্তে। এটিএমের হয়ে ১৯৮৭ থেকে ১৯৯৩ পর্যন্ত খেলার ফুর্তের মতে, গ্রিজম্যানের আগেই বোঝা উচিত ছিল যে বার্সেলোনা মানেই এর পুরোটা জুড়ে লিওনেল মেসি। যেখানে কি না এটিএমে রীতিমতো গড তথা ঈশ্বরের পর্যায়ে ছিলেন গ্রিজম্যান।

অবশ্য অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ও ফ্রান্সের হয়ে অসাধারণ পারফরম্যান্সের কারণেই তাকে দলে নিয়েছিল বার্সেলোনা। আশা ছিল, নিজেদের স্ট্রাইকারের অভাব পূরণ করতে পারবে কাতালান ক্লাবটি। কিন্তু তা হয়নি। পুরো এক মৌসুম কাটানোর পর দ্বিতীয় মৌসুমে এসেও সেরা ছন্দ খুঁজে পাননি গ্রিজম্যান।

কেন বার্সায় এসেছিলেন গ্রিজম্যান, তা বুঝতে পেরে কাতালুমিয়া রেডিওতে ফুর্তে বলেছেন, ‘গ্রিজম্যানের দলবদলের সিদ্ধান্তটা আমি বুঝতে পারছি। কারণ সে বার্সেলোনার হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জিততে চেয়েছে। আমি মনে করি, সে বেশি বেশি জিততে চেয়েছিল। যেটা বার্সায় সহজেই পাওয়া যাবে ভেবেছে।’

ফুর্তে আরও যোগ করেন, ‘কিন্তু আমরা সবাই জানি, বার্সেলোনায় সবার আগে মেসি, তারপর মেসি, আবার মেসি। গত মৌসুমে লুইস সুয়ারেজ ও জেরার্ড পিকের পর চতুর্থ বা পঞ্চম স্থানে ছিল গ্রিজম্যান। বার্সেলোনা যদি চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতে, তখন সব খবরের কাগজে বড় ছবিটি থাকবে মেসিরই।’

এসময় গ্রিজম্যানকে এটিএমের গড হিসেবে আখ্যায়িত করে ফুর্তে বলেন, ‘গ্রিজম্যান যদি অ্যাটলেটিকো না ছাড়ত, নিশ্চিতভাবেই সে একজন কিংবদন্তি হয়ে থাকত। হয়তো এর চেয়েও বেশি কিছু, আমি নিশ্চিত এমন কিছুই হতো। সব সমস্যাও সে মিটিয়ে নিতে পারত। অ্যাটলেটিকো ক্লাবে গ্রিজম্যান গড ছিলেন, বার্সেলোনায় সে ধারেকাছেও নেই।’

 

সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *