1. mizanurrahmanbadol2@gmail.com : Chaloman Shomoy : Chaloman Shomoy
  2. arasif1989@gmail.com : jony :
  3. mashiur2k@gmail.com : mashiur :
  4. trustit24@gmail.com : Admin panel : Admin panel
  5. chalomanshomoy@gmail.com : Polash News : Polash News
  6. info@chalomanshomoy.com : suvash :
রাজশাহীতে আলুর চওড়া দাম - চলমান সময়
January 23, 2021, 9:27 pm
শিরোনাম:
কোম্পানীগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর ভূমিহীন ও গৃহহীনদের কাছে হস্তান্তর করলেন ইউএনও সরকার দেশের মানুষের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে: এম.পি কিরণ ঘাটাইলে গৃহবধূকে ধর্ষণ, ভিডিও ফেইসবুকে ছেড়ে দেয়ার হুমকি প্রত্যেক গৃহহীন শেখ হাসিনার উপহার গৃহ পাবেন: উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার ‘মাশরাফি জুনিয়র’ নাটকের ৫০ পর্ব পূর্ণ হলো হঠাৎ স্থগিত ঢাকায় ২০২১ এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হকি রেলওয়ে পোষ্য সোসাইটি চট্টগ্রাম শাখার সাধারণ সম্পাদকের উপর হামলার প্রতিবাদ শেষ ওয়ানডে খেলার লক্ষে চট্টগ্রামে টাইগাররা বাংলাদেশ প্রাক্তন সৈনিক সংস্থার প্রকল্প উদ্বোধন করলেন মেয়র টিটু ন্যাশনাল গার্ডের সদস্যদের কাছে ক্ষমা চাইলেন বাইডেন

রাজশাহীতে আলুর চওড়া দাম

রাজশাহী প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : শনিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২০
  • 20 Time View

দফায় দফায় বন্যায় রাজশাহীর বেশিরভাগ সবজিক্ষেত তলিয়ে যাওয়ায় উৎপাদন নেমেছিল তলানিতে। সরবরাহে টান পড়ায় দাম বেড়েছিল কয়েকগুণ। কিন্তু এখন পরিস্থিতি পাল্টেছে। শীতকালীন রকমারি শাকসবজিতে ঠাসা বাজার। ফলে স্বস্তি ফিরেছে বাজারে।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) সকালে বাজার ঘুরে দেখা গেছে, গত সপ্তাহের চেয়ে আরও এক ধাপ কমেছে সব রকমের সবজির দাম। কেজিতে ২০ টাকা কমে ফুলকপি ও বাঁধাকপি বিক্রি হচ্ছে ২০-২৫ টাকায়। কেজিতে ১০-১৫ টাকা কমে পটোল ৩০, পেঁপে ২৫, ঢেঁড়স ৪০ এবং করলা ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এখনো চড়া টমেটোর দাম। প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০-১২০ টাকায়। গাজরও বিক্রি হচ্ছে একই দামে।

jagonews24

বাজারে প্রতি কেজি মিষ্টি কুমড়া ৩০ টাকা, মুলা ২০, শিম ৪০, বরবটি ৫০ এবং বেগুন ৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এক সপ্তাহ আগে ৫০ টাকার নিচে মিলছিল না এসব সবজি।

কমতির বাজারে বাড়তি কেবল আলুর দাম। সরকার নির্ধারিত ৩০ টাকায় নয়, আলু বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকায়। আপাতত স্থিতিশীল পেঁয়াজের দাম। গত সপ্তাহের মতো দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৬৫-৭০ এবং আমদানিকৃত পেঁয়াজ ৪৫-৫০ টাকায়। গত সপ্তাহের মতো ৮০ টাকা কেজিতে বিক্রি হয়েছে কাঁচামরিচ। দাম বাড়েনি আদা-রসুনের।

আমন উঠেছে কৃষকের গোলায়। এর প্রভাব পড়েছে রাজশাহীর চালের বাজারে। শনিবার প্রতি কেজি আটাশ চাল ৫২, স্বর্ণা ৪৬, কাটারিভোগ ৫৬, মিনিকেট ৫৫, নাজিরশাইল ৬০, বাসুমতি ৬৫, কালোজিরা আতপ জাতভেদে ৬৫-৮৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

jagonews24

মাছ ও মাংসের বাজারেও উত্তাপ নেই। বাজারে ইলিশ আকারভেদে ৫০০-৮০০ টাকা, পাবদা ৫৫০, বড় রুই ২৫০-২৮০, মৃগেল ১৫০, কৈ ৪০০, চিংড়ি ৬০০, কাতল ২৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

অন্যদিকে গত সপ্তাহের মতো গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৫৪০, খাসি ৭৫০, ব্রয়লার মুরগি ১২০, সোনালি ১৭০, দেশি মুরগি ৩৬০, পাতিহাঁস ২৬০ ও রাজহাঁস ৩৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *