1. mizanurrahmanbadol2@gmail.com : Chaloman Shomoy : Chaloman Shomoy
  2. arasif1989@gmail.com : jony :
  3. mashiur2k@gmail.com : mashiur :
  4. trustit24@gmail.com : Admin panel : Admin panel
  5. chalomanshomoy@gmail.com : Polash News : Polash News
  6. info@chalomanshomoy.com : suvash :
নাথান লিয়নের ‘বল ঘুরলেই সবার কান্নাকাটি শুরু হয়ে যায়’ - চলমান সময়
April 22, 2021, 1:45 am
শিরোনাম:
কাদের মির্জার শান্তির ডাক, নিছক কুটকৌশল ছাড়া আর কিছুই নয়: উপজেলা আ’লীগ বেগমগঞ্জে সূর্যমুখি চাষে ঝুঁকছে প্রান্তিক কৃষক হিলিতে দুই চাল দোকানীকে ৭ হাজার টাকা জরিমানা পুলিশ সুপারের উদ্যোগে ১০ বছর পর বসতভিটা ফিরে পেল নাটোরের কল্পনা পাহান  ঝালকাঠিতে ডায়রিয়া পরিস্থিতির অবনতি, কারণ অনুসন্ধানে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের রোগ নিয়ন্ত্রণ সেল সুনামগঞ্জে অবৈধ বালি ও পাথরসহ ২৫টি নৌকা আটক, ১জনের কারাদন্ড ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনে ভ্রাম্যামাণ আদালতের জরিমানা ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসকের মাস্ক বিতরণ নিজের ১৬ আনা ঠিক রেখেই প্রস্তাব তুলে ধরলেন মির্জা: উপজেলা আ’লীগ পাঁচ বোলার নিয়ে লড়াইয়ে নামছে বাংলাদেশ

নাথান লিয়নের ‘বল ঘুরলেই সবার কান্নাকাটি শুরু হয়ে যায়’

স্পোর্টস ডেস্ক, চলমান সময়
  • আপডেট সময় : রবিবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১
  • 37 Time View

অনেক রেকর্ডের জন্ম দিয়ে মাত্র দুই দিনে শেষ হয়ে গেছে ভারত ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার সিরিজের তৃতীয় টেস্ট। বিশ্বের সবচেয়ে ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হওয়া দিবারাত্রির ম্যাচটি, রেকর্ডের পাশাপাশি জন্ম দিয়েছে অনেক আলোচনার। যার পুরোটা জুড়েই একটি বিষয়, আহমেদাবাদের পিচ!

গোলাপি বলে হওয়া ম্যাচটির দ্বিতীয় ইনিংসে দুই দলের একজন পেসারও হাত ঘোরানোর সুযোগ পাননি। সবমিলিয়ে যে ৩০ উইকেটের পতন ঘটেছে ম্যাচে, তার মধ্যে ২৭টিই গেছে স্পিনারদের ঝুলিতে। ব্যাটসম্যানদের ওপর ছড়ি ঘুরিয়েছেন অক্ষর প্যাটেল, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, জো রুট, জ্যাক লিচরা।

আর এ বিষয়টিই যেন মানতে পারছে না ক্রিকেট বিশ্ব। বিশেষ করে, ইংল্যান্ডের সাবেক ক্রিকেটার মাইকেল ভন, অ্যালিস্টার কুক, ডেভিড লয়েড, অ্যান্ড্রু স্ট্রাউসরা রীতিমতো ধুয়ে দিয়েছেন তৃতীয় ম্যাচের পিচকে। অন্যদিকে ভারতের ক্রিকেটাররা আবার যুক্তি দিয়েছেন স্পিনিং পিচের পক্ষেই।

এবার এ আলোচনায় যোগ দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার অফস্পিনার নাথান লিয়ন। তিনিও ভোট দিয়েছেন ভারতের স্পিনবান্ধব উইকেটের পক্ষে। বিশ্বের অন্যান্য দেশে পেসবান্ধব উইকেট হতে পারলে, স্পিন সহায়ক উইকেট কেন বানানো যাবে না, তাই বুঝতে পারছেন লিয়ন।

জনপ্রিয় বার্তাসংস্থা এএফপিকে লিয়ন বলেছেন, ‘আমরা বিশ্বজুড়ে সিমিং (পেসবান্ধব) উইকেটে খেলি, তখন ৪৭, ৬০ রানে অলআউট হই। তখন কেউ কিছু বলে না। কিন্তু যখনই উইকেট বল ঘুরতে থাকে, তখন সবার কান্নাকাটি শুরু হয়ে যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি এই আলোচনার অর্থই বুঝি না। আমি এমন উইকেটের পক্ষে আছি। এটা যথেষ্ঠ বিনোদনদায়ী ছিল। এই ম্যাচ দেখার জন্য রাত জেগেছি। সত্যিই দারুণ ছিল। আমি তো ভাবছি, এই ম্যাচের কিউরেটরদের সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে নিয়ে আসি।’

সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *