1. mizanurrahmanbadol2@gmail.com : Chaloman Shomoy : Chaloman Shomoy
  2. arasif1989@gmail.com : jony :
  3. mashiur2k@gmail.com : mashiur :
  4. trustit24@gmail.com : Admin panel : Admin panel
  5. chalomanshomoy@gmail.com : Polash News : Polash News
  6. info@chalomanshomoy.com : suvash :
সুনামগঞ্জে অবৈধ বালি ও পাথরসহ ২৫টি নৌকা আটক, ১জনের কারাদন্ড - চলমান সময়
May 9, 2021, 2:31 am
শিরোনাম:
৭১-এ পরাজয় নিশ্চিত জেনে পাকিস্তানিরা যে কাজ করেছে, মির্জাও তা করছে: বাদল আর কোন ছাড় দেবোনা, কাদের মির্জাকে প্রতিহত করা হবে: মঞ্জু বাঙালির চেতনা-মননের প্রধান প্রতিভূ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর : রাষ্ট্রপতি সুনামগঞ্জে ৬ টুকরো লাশ উদ্ধারের ঘটনায় নারীসহ গ্রেফতার-৬ হালদায় অভিযান, এক হাজার মিটার নিষিদ্ধ জাল জব্দ আবর্জনায়পূর্ণ চৌমুহনী শহরের খালগুলো লাউড়গড় সীমান্তে অবৈধ বালি-পাথরসহ ৩টি নৌকা ও ২টি ট্রাক আটক কোম্পানীগঞ্জে ফের বাস ভাংচুর করেছে মির্জা অনুসারীরা দল থেকে পদত্যাগের পর আ’লীগ নেতাকর্মীদের মামলা দিয়ে হয়রানী করছে কাদের মির্জা কোম্পানীগঞ্জে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের উপর মির্জা অনুসারীদের হামলা, আহত-৪

সুনামগঞ্জে অবৈধ বালি ও পাথরসহ ২৫টি নৌকা আটক, ১জনের কারাদন্ড

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া, সুনামগঞ্জ থেকে :
  • আপডেট সময় : বুধবার, এপ্রিল ২১, ২০২১
  • 29 Time View

সুনামগঞ্জের ধোপাজান ও চলতি নদীতে পৃথক অভিযান চালিয়ে ২০ হাজার ঘনফুট বালু ও ৫ শত ঘনফুট পাথরসহ ২৫টি নৌকা আটক করা হয়েছে। অভিযানের সময় বাঁধা দেওয়া ১জনকে ১মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে

ভ্রাম্যমান আদালত।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত পৃথক অভিযান পরিচালনা করেন বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাদি উর রাহিম জাদিদ। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন- সহকারী কমিশনার (ভূমি) সজল মোল্লা ও মোঃ আরিফ আদনান, ওসি সুরঞ্জিত তালুকদার প্রমুখ।

ভ্রাম্যমান আদালত কর্তৃক দন্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তির নাম, করম আলী। সে জেলার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার কালীপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়- পার্শ্ববর্তী যাদুকাটা নদীর মতো ধোপাজান ও চলতি নদীর তীর কেটে ও পাথর কোয়ারী তৈরি করে দীর্ঘদিন যাবত বালি ও পাথর উত্তোলন করে

বিক্রি করছে এলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তিরা। সরকারের লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে যাদুকাটা, ধোপাজান ও চলতি নদীর বালি ও পাথর খেকোরা রাতারাতি কোটিপতি হলেও এখনও পর্যন্ত আইনের আওতায় আসেনি। তবে পরিবেশ রক্ষা ও নদী ভাঙ্গন থেকে এলাকা অসহায় মানুষদের ঘরবাড়ি রক্ষা করার জন্য যাদুকাটা নদীটি লিজ না দেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে পৃথকভাবে ডিও লেটার ও আবেদন করেছেন সুনামগঞ্জ-১ আসনের এমপি ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন ও তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল। কিন্তু একটি মহল যাদুকাটা নদীটি দখলে রাখার জন্য বিভিন্নভাবে অপতৎপরতা চালিয়েছে বলে জানাগেছে।

সম্পাদনা: প্রশান্ত সুভাষ চন্দ, চীফ রিপোর্টার।

সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *