1. mizanurrahmanbadol2@gmail.com : Chaloman Shomoy : Chaloman Shomoy
  2. arasif1989@gmail.com : jony :
  3. mashiur2k@gmail.com : mashiur :
  4. trustit24@gmail.com : Admin panel : Admin panel
  5. chalomanshomoy@gmail.com : Polash News : Polash News
  6. info@chalomanshomoy.com : suvash :
আবর্জনায়পূর্ণ চৌমুহনী শহরের খালগুলো - চলমান সময়
June 18, 2021, 10:51 am

আবর্জনায়পূর্ণ চৌমুহনী শহরের খালগুলো

বেগমগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি :
  • আপডেট সময় : শনিবার, মে ৮, ২০২১
  • 57 Time View

নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী একটি প্রথম শ্রেণীর পৌরসভা। অথচ  এই শহরের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত একাধিক খালে জঞ্জাল ও ময়লা আবর্জনাপূর্ণ। এতে একদিকে মশার বিস্তার ঘটছে, অপরদিকে ময়লা আবজর্নার দুর্গন্ধে জনস্বাস্থ্যের মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে।

জানা যায়, নোয়াখালী জেলার মধ্যস্থলে অবস্থিত বৃহত্তর নোয়াখালীর প্রধান বানিজ্যিক কেন্দ্র চৌমুহনী শহর। এই শহরের ওপর দিয়ে একাধিক খাল প্রবাহিত হয়েছে। এক সময় এ শহরের সাথে দেশের নদীবন্দর চাদপুর, ভৈরব, নারায়নগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানের সাথে সরাসরি নৌ যোগাযোগ ছিল। বড় বড় সাম্পানে করে চৌমুহনীতে মালামাল আসত। চৌমুহীতে ছয়টি নৌকা ঘাট ছিল। বেশ কয়েক বছর থেকে অবৈধ দখলদারদের কবলে খাল ভরাট করে দোকানপাট, এমনকি বহুতল পাকা ভবন নির্মান করায় খালগুলো নালায় পরিণত হয়েছিল। ফলে পানি নিষ্কাশনে চরম বিঘ্ন সৃষ্টি হয়।

২০২০ সনের প্রথমদিকে খালগুলো পুণ:খননের কাজ শুরু করার সময় অল্প কয়েক ফুট উচ্ছেদ করলেও খালের ভিতরের পাকা ভিত রয়ে যায়। পুণ: খননের নামে খালের মধ্য থেকে কিছু পরিমান আবর্জনা তুলে পাকা ভিতের মধ্যেই রেখে দেয়। কোথায়ও কোথায়ও খালের মধ্যে রেখে দেয়। বৃষ্টির সময় ময়লা আবর্জনা পুণরায় খালে চলে আসে। এতে খাল আগের রূপ ধারণ করে ময়লা, আবর্জনা ও জঞ্জালে পূর্ণ হয়ে যায়।

বর্তমানে খালগুলো ময়লা, আবর্জনা ও জঞ্জালে পূর্ণ থাকায় একদিকে মশার বিস্তার ঘটছে, অপরদিকে দুর্গন্ধে জনস্বাস্থ্যের মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে।

এ ব্যাপারে স্থানীয় বাসিন্দা মির্জা মহিউদ্দিন, মোস্তফা মহসিন, আবদুল হালিম, আবদুল মতিনসহ অনেকে অভিযোগ করে জানান, খাল কি পুণ:খনন করা হয়েছে? না কি লোক দেখানো হয়েছে তা বুঝা যাচ্ছে না। এ ছাড়া খালের অবৈধ দখলদারও রয়ে গেছে বহাল তবিয়তে।

চৌমুহনী পৌর সভার প্যানেল মেয়র শাহাবুদ্দিন কাজল জানান, খালগুলো কি খনন হয়েছে, না কি হয়নি তা বুঝা যাচ্ছে না। খালের ময়লা আবর্জনা খালেই রয়ে গেছে। এতে যে উদ্দেশ্যে খাল পুনখনন করা হয়েছে, তা ব্যর্থ হয়েছে।

বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামসুন নাহার জানান, এ খালগুলো পুণ:খননের তদারকির দায়িত্বে ছিল পানি উনানয়ন বোর্ড। তারাই বলতে পারে।

নোয়াখালী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী নাসির উদ্দিন জানান, খালগুলো পুণ:খনন ও অবৈধ দখলমুক্ত করা হয়েছে এবং সমস্ত ময়লা আবর্জনা সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলে আমার নিকট রিপোর্ট দিয়েছে। যদি অসম্পর্ণ থেকে থাকে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সম্পাদনা: প্রশান্ত সুভাষ চন্দ, চীফ রিপোর্টার।

সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *